পুলিশের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা না নেওয়ার অভিযোগ

রংপুর 0 Comment

রুহুল সরকার, রাজীবপুর (কুড়িগ্রাম) ।। কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে কলেজ ছাত্রীকে ডেকে নিয়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেয়ার পরও পুলিশ মামলা নিচ্ছে না। অভিযোগের পর মামলা রেকর্ড করা হবে, আজ না কাল এভাবে দীর্ঘ ১৬দিন পর মামলা না নিয়ে ধর্ষক পরিবারের সঙ্গে মীমাংসা হওয়ার কথা বলছে পুলিশ। গতকাল শনিবার সাংবাদিকদের কাছে এমন অভিযোগ করা হয়েছে নির্যাতিত পরিবারের পক্ষ থেকে।

নির্যাতিত পরিবারের আব্দুল বারেক অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি থানায় বিচার চেয়ে অভিযোগ দিলাম। প্রথমে পুলিশ খুব তৎপর ছিল। মনে আইন বিচার পামু। কিন্তু থানার ওসি স্যার এহন কয়, মেয়ে নিয়া বাড়াবাড়ি না কইরা কিছু টাকা নিয়া মিলমিশ হয়ে যাও। কোনো মামলা নেয়া হবে না। আসামিরা ওসি স্যারেক অনেক টাকা দিছে। এদিকে আসামির ভয়ে মেয়ে আমার কলেজে যাওয়া ছেড়ে দিয়েছে। নাওয়া খাওয়াও করে না সময় মতো। মেয়েকে নিয়া খুব বিপদে আছি।’

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার ধুলাউড়ি গ্রামের আব্দুল বারেক এর কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে গত ১৫ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টার দিকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় একই গ্রামের নাছির উদ্দিন (২২) নামের এক বখাটে। এসময় নাছিরের সঙ্গে আরিফ হোসেন (২৪) নামে আর এক বখাটেও উপস্থিত ছিল। তারা দুজন অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মেয়েটিকে। কিন্তু মেয়ের চিৎকারে স্থানীয় মানুষ এগিয়ে এসে মেয়েকে উদ্ধার করে। নাছির উদ্দিন একই গ্রামের হযরত আলীর পুত্র।

ওই ঘটনার দিনই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ ঘটনা তদন্তে গিয়ে গ্রামবাসীর স্বাক্ষ্য গ্রহণও করে। কিন্তু পরবর্তীতে মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে শুরু করে থানা পুলিশ। এমন অভিযোগ করেন নির্যাতিত পরিবারটি।

এ প্রসঙ্গে রাজীবপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিউল আলম জানান, ঘটনাটি সত্য। কিন্তু পুলিশ কি কারণে মামলা নিচ্ছে না তা খুবই রহস্যজনক বলেই মনে হয় আমার।

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আজ শনিবার রাজীবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) পৃথীশ কুমার সরকার বলেন, ‘ঘটনার পরপরই অভিযোগ পেয়েছি সত্য কিন্তু অভিযুক্তরা তো এলাকায় নেই। আমার মনে হয়েছে ছেলে আর মেয়ের মধ্যে সম্পর্ক ছিল। যা হয়েছে দু’জনের ইচ্ছেতেই। ধর্ষণ হয়নি আর নারী নির্যাতনেরও প্রমাণ নেই। এ কারণে মামলা নেয়া হয়নি।’ আসামিদের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণ এবং মীমাংসার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করে বলেন, আমি তাদের মীমাংসার কথা বলিনি। তবে আদালতে মামলা করার কথা বলেছি তাদের ।

Category: Product #: Regular price:$ (Sale ends ) Available from: Condition: Good ! Order now!

Author

Leave a comment

Back to Top

Show Buttons
Hide Buttons