কুড়িগ্রামে নির্মাণাধীন স্কুলের ছাদ ধ্বসে আহত-২ ঠিকাদার অবরুদ্ধ

কুড়িগ্রামে নির্মাণাধীন স্কুলের ছাদ ধ্বসে আহত-২ ঠিকাদার অবরুদ্ধ

রংপুর 0 Comment

সাইফুর রহমান শামীম, কুড়িগ্রাম ।। কুড়িগ্রামে নির্মাণাধীন একটি স্কুলের দ্বিতল ভবনের ছাদের একাংশ ভেঙে ২ শ্রমিক আহত হয়। এসময় উত্তেজিত লোকজন ঠিকাদার গোলাম মোস্তফাকে বিদ্যালয় কক্ষে প্রায় দুই ঘন্টা অবরুদ্ধ করে রাখে। প্রতিবাদ করায় এক নারীকে লাঞ্চিত করে ইউপি আওয়ামীলীগ নেতার পুত্র। পরে ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লোকজনকে শান্ত করে ঠিকাদারকে উদ্ধার করে। ছাদ ধ্বসে পড়ার ঘটনায় শিক্ষার্থীরা আতংকে স্কুল ছেড়ে বাড়ীতে চলে যায়। ফলে স্কুলের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়।

স্থানীয় আহম্মদ হোসেন, জয়নাল আবেদীন জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নে উত্তর কুমরপুর আবিরের ভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নির্মাণাধীন দ্বিতল ভবনের ছাদের একাংশ ভেঙে দুলাল মিয়া (৩০) ও সমিনুর রহমান (১৮) নামে দু’ শ্রমিক আহত হয়। এদের দু’ জনকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে দুলাল মিয়ার কোমড় ও হাত ভেঙ্গে যায় এবং সমিনুরের বাশ পড়ে মাথা ফেটে গেছে বলে জানান তারা। নিম্নমানের কাজ হবার অভিযোগ করে বলেন, ছাদ ঢালাই দেবার সময় আমরা দেখতে গেলেও আমাদেরকে তাড়িয়ে দেয় ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে। বিল্ডিংয়ের ছাদ ঢালাই চলাকালীন আরো একবার ভেঙ্গে পড়েছিল। তারপরেও তারা মান সম্পন্ন কাজ করে নাই। এই ছাদ ঢালাইয়ের সময় লোকাল বালু ব্যবহার করেছে আর সিমেন্টের পরিমাণ একদম কমছিল। ছাদে তিন সুতি রড ব্যবহার করা হয়েছে।

আতাউর রহমান, জাহাঙ্গীর আলমসহ অনেক অভিভাবক বলেন, নিম্নমানের কাজ হওয়ায় নির্মাণাধীন ছাদ যদি ভেঙ্গে পড়েছে। এই ছাদ মান সম্পন্ন ভাবে তৈরি করা না হলে আমরা আমাদের সন্তানদের স্কুলে আসতে দেবনা। এর চেয়ে বড় কোন ঘটনা ঘটলে দায়ভার কে নেবে।

শ্রমিক সমিনুরের মা মঞ্জু বেগম (৪০) জানান, ছাদ ভাঙ্গার খবর শুনে দৌড়ি আসি দেখি মোড় ব্যাটার মাথা ফাটছে। এই নিয়ে চিল্লাচিল্লি করলে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ওসমান গণির ছেলে আশরাফ আলী সবার সামনে চড়-থাপ্পড় মেরে চলে যায়। এতে এলাকার লোকজন খেপিয়া আশরাফের স্ত্রী বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা ও ঠিকাদার গোলাম মোস্ত্মফাকে প্রায় দু’ঘন্টা রুমে তালাবদ্ধ করে রাখে।

শিক্ষার্থী হাসান,ফয়জুল করিম,মোজাহিদ,মাসুদ রানা, জান্নাতুন জানান,সকালে আমরা ক্লাস করছিলাম। হঠাৎ একটি শব্দে স্যার ক্লাস থেকে বের হয়ে আসলে আমরাও স্যারের সাথে বের হয়ে আসি। ছাদ ভেঙ্গে পড়ায় আমাদের মাঝে ভয় করছে। জানিনা কিভাবে ক্লাস করব আমরা।

ঠিকাদার গোলাম মোস্তফা বলেন, এলজিইডি কর্তৃক এক বছরের মধ্যে ১৯লাখ টাকা ব্যয়ে ভার্টিক্যাল এক্সটেনশনের কাজ করা হচ্ছে এই স্কুলের। নিম্নমানের কাজের বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি আরো জানান, ভবনের বাহির অংশে তিন দিন আগে ঢালাই দেয়া হয়। শ্রমিকরা না বুঝেই ফালাইয়ে ব্যবহৃত বাশের খুঁটি সরিয়ে ফেলতে গেলে ছাদটি ধ্বসে পড়ে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তিনি ক্ষমা প্রার্থনা করে তিনি আহতদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করার দায়িত্ব নেন।

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কাজল কুমার সরকার জানান, বিষয়টি আমরা দেখেছি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এবং এলজিইডি’র ইঞ্জিনিয়ার এসে দেখে ব্যবস্থা নেবেন।

ভোগডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন,ছাদ ধ্বসের ঘটনায় স্কুলে একটি উদ্বুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হয়। খবর পেয়ে আমিও পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে স্থানীয়দের কাছে সঠিক তদন্ত করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঠিকাদারকে বের করা হয়।

Category: Product #: Regular price:$ (Sale ends ) Available from: Condition: Good ! Order now!

Author

Leave a comment

Back to Top

Show Buttons
Hide Buttons