কুড়িগ্রামে গরুর খুরা রোগে দুঃচিন্তায় কৃষকরা

কুড়িগ্রামে গরুর খুরা রোগে দুঃচিন্তায় কৃষকরা

কুড়িগ্রাম 0 Comment

সাইফুর রহমান শামীম, জেলা প্রতিনিধি (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রাম জেলার সর্বত্রই গরুর ুরা রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। প্রতিটি গ্রামগঞ্জে ওই রোগ ছড়িয়ে পরায় দুশ্চিন্তায় পড়েছে কৃষকরা।
সরেজমিন নাগেশ্বরী উপজেলার ভিতরবন্দ ইউনিয়নের ভবারীপুর গ্রামের কৃষক বাবর আলী বাড়ী গিয়ে দেখা যায়, তার গৃহপালিত ১০টি গরু ুরা রোগে আক্রান্ত হয়েছে। স্থানীয় পশু চিকিৎসক ডাঃ আবুল কাশেমকে কৃষক বাবর আলীর বাড়ীতেই পাওয়া যায়। তিনি ‘সালফানিলামাইড পাউডার দিয়ে আক্রান্ত গরুগুলোর মুখ পরিস্কার করে লবন গুড় মিশিয়ে ভাতের মাড় খাওয়াচ্ছেন।
পাশের টাকীমারী গ্রামের শাহের আলীর বাড়ী গিয়ে দেখা যায় তার ৫টি গরু ুরা রোগে আক্রান্ত হয়েছে। তিনি সুরমত আলী নামের একজন কবিরাজ দিয়ে গরুর গা ঝাড়ফুক করে নিচ্ছেন।
শাহের আলী জানান, গত ৭দিন থেকে আমার ৫টি গরু আক্রান্ত। কি করবো বুঝতে পারছি না। শুনেছি ভিতরবন্দ ইউনিয়নে গবাদি পশু চিকিৎসার একটি সাব সেন্টার আছে । সেখানে একজন চিকিৎসক আছে। তাকে ৫দিন ধরে খুজে পাওয়া যাচ্ছে না।
ভিতরবন্দ ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়াডের মেম্বার আনিছুর রহমান জানান, অত্র ওয়ার্ডে অনেক কৃষকের গরুর ুরা রোগ হয়েছে। কিন্তু সরকারী ভাবে কোন সেবা দেয়া হচ্ছে না।
জেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা দীপকরঞ্জন রায় বলেন, ুরা রোগ সকল বয়সের গরু, মহিষ, ছাগল ও ভেড়ার ভাইরাসজনিত একটি অতি ছোয়াছে রোগ। ুরারোগের লন হচ্ছে আক্রান্ত গরুর গায়ের তাপমাত্রা খুব বৃদ্ধি পায়। জিহ্বা, দাঁতের মাড়ি, সম্পুর্ন মুখ গহবর, পায়ের ুরের মধ্যভাগ ঘা বা ত সৃষ্টি হয়। ফলে গরুর মুখ দিয়ে লালা ঝড়ে এবং সাদা ফেনা বেড় হয়। তখন গরু খোড়াতে থাকে এবং খাবার খেতে পারে না। ফলে অল্প সময়ে গরু দুর্বল হয়ে মারা যায়। এ অবস্থায় রোগাক্রান্ত গরুকে অন্য গরু থেকে আলাদা রাখার পরামর্শ দেন তিনি। তিনি ুরাক্রান্ত গরু ভাল করার জন্য ‘সালফানিলামাইড পাউডার ব্যবহার করার পরামর্শ দেন। তবে জেলার কোন কোন এলাকার গরু খুরা রোগে আক্রান্ত হয়েছে তা জানা নেই তার।

Category: Product #: Regular price:$ (Sale ends ) Available from: Condition: Good ! Order now!

Author

Leave a comment

Back to Top

Show Buttons
Hide Buttons