কুড়িগ্রামের চরাঞ্চলে মুগ ডালের বাম্পার ফলন

কুড়িগ্রামের চরাঞ্চলে মুগ ডালের বাম্পার ফলন

কুড়িগ্রাম 0 Comment

সাইফুর রহমান শামীম, কুড়িগ্রাম।। কুড়িগ্রামের নদ-নদীগুলো গ্রামের পর গ্রাম ভেঙ্গে ভেঙ্গে চরাঞ্চলে পরিণত করেছে। দীর্ঘদিন থেকে এসব চর বন্যার পানিতে তলিয়ে জমেছে পলির স্তর। এ জমিগুলোতে কৃষকরা ফলিয়েছে মুগ ডাল। অনাবাদী জমিগুলোতে ফলেছে আশা জাগানিয়া মুগ ডালের ফলন। কৃষকের মুখে ফুটেছে হাসি।

চরাঞ্চলবাসীরা সকলে দারিদ্রসীমার নিচে বাস করে। খেটে দিন চলে যায় তাদের। কিন্তু সুষম ও প্রোটিন জাতীয় খাবার খেতে পারেনা। এদের আয়ও তেমন নেই। এ মানুষগুলোর আয় বৃদ্ধি এবং প্রোটিনের চাহিদা পূরণসহ আর্থ সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউট এর সংশ্লিষ্টতায় তাদেরই উদ্ভাবিত বারি মুগ-৬ নামক মুগ ডাল চরাঞ্চলের ৭৫ বিঘা জমিতে লাগানো হয়েছে এ বছর। পরীক্ষা মূলক ফসলে বাম্পার ফলন হাসি এনেছে কৃষকের মুখে।

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ধরলা নদীর চর, সেনের খামার নিধিরাম ও মাধবরাম চরে ৪৫ বিঘা এবং নাগেশ্বরী উপজেলার বেরুবাড়ীর চরে ৩০ বিঘা জমিতে মুগ ডাল আবাদ করা হয়। ফলন পাওয়া গেছে বিঘা প্রতি প্রায় ৬ মণ ডাল। কৃষকরা জানায় প্রতি বিঘা জমিতে মুগ ডাল চাষে সব মিলে খরচ হয়েছে সর্বোচ্চ দেড় হাজার টাকা। সেখান থেকে আয় হবে প্রায় ১৩ হাজার টাকা।

নিধিরাম চরের মুগ ডাল চাষী ইয়াছিন আলী, মেহেরুল হক, আব্দুস সোবহান, বাচ্চু মিয়া, খলিল বলেন, চরের জমিগুলো পরে থাকত। দিগন্তজোড়া কাঁশবন ছাড়া চোখে কিছুই দেখা যেত না। সে জমিগুলোতে মুগ ডাল চাষ কর হয়েছে। অভাব ঘুচে গেছে। ভালো ফলন দেখে চরাঞ্চলের কৃষকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া পড়েছে।

জেলা কৃষি বিভাগের উপ-পরিচালক প্রতিপ কুমার মন্ডল জানান, কুড়িগ্রাম সদর ও নাগেশ্বরী উপজেলার অনাবাদী চরে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করে স্থানীয় কৃষি বিভাগ এ ডাল চাষ করে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহায়তায় এ ডাল চাষ করা হচ্ছে। আগামী মৌসুমে চরাঞ্চলে মুগ ডালের ব্যাপক চাষের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

Category: Product #: Regular price:$ (Sale ends ) Available from: Condition: Good ! Order now!

Author

Leave a comment

Back to Top

Show Buttons
Hide Buttons