এবার শৃঙ্খলের দড়ি ছিঁড়ে ফেলব: এরশাদ

এবার শৃঙ্খলের দড়ি ছিঁড়ে ফেলব: এরশাদ

চলতি ঘটনা 0 Comment

ঢাকা অফিস: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, নব্বইয়ের পর কোনো সরকারই আমার সাথে সুবিচার করেনি। আমি একজন শৃঙ্খলবদ্ধ রাজনীতিবিদ। কিন্তু এবার আমি সকল শৃঙ্খলের দড়ি ছিঁড়ে ফেলব।

বুধবার সকালে বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট বার এসোসিয়েশন মিলনায়তনে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাতীয় পার্টি আয়োজিত প্রতিনিধি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, বিএনপির আমলে দায়ের করা মামলা এক মাস আগেও সচল করেছে সরকার। সবাই আমাকে শৃঙ্খলের দড়ি দিয়ে বেঁধে রাখতে চায়। এবার আমাকে শৃঙ্খলের দড়ি দিয়ে আটকে রাখতে পারবে না। সকল শৃঙ্খলের দড়ি ছিঁড়ে ফেলব।
দেশের বর্তমান পরিস্থিতি স্বাভাবিক নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে কোথাও শান্তি নাই, নিরাপত্তা নাই। গণতন্ত্র বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। জনগণের ভোটের অধিকারও লুণ্ঠিত হচ্ছে। দেশের রাজনীতিবিদদের ভিতরে কোনো সহঅবস্থান নেই। একে অপরকে প্রতিপক্ষ মনে করি। এভাবে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র চলতে পারে না।
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, আমার শাসনামলে মানুষের মাঝে এই হাহাকার ও সংশয় ছিলো না। তাই মানুষ আবার জাতীয় পার্টির শাসনামলে ফিরে যেতে চায়। আগামীতে একক নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের রায় নিয়ে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেবে, দেশে শান্তি সুপ্রতিষ্ঠিত করবে।
খোরশেদ আলম খুশু, সুজন দে ও মাহবুবুর রহমান খসরুর যৌথ পরিচালনায় প্রতিনিধি সভায় সভাপতিত্ব করেন মহানগরর দক্ষিণ জাপার সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি।
প্রতিনিধি সভায় আরো বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি, শেখ সিরাজুল ইসলাম, এসএম ফয়সল চিশতি, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম রুবেল প্রমুখ।

দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় পার্টি বিগত দিনের চেয়ে এখন অনেক বেশি শক্তিশালী। অত্যাচার নির্যাতন করে জাতীয় পার্টির অগ্রযাত্রাকে কেউ ব্যাহত করতে পারেনি। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও আমাদের পার্টি সত্যিকারের গণমানুষের অধিকার আদায়ের নির্ভরযোগ্য রাজনৈতিক ফ্লাটফর্ম।

সভাপতির বক্তব্যে আবু হোসেন বাবলা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু আমাদের বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধীন ভূখণ্ড দিয়েছেন। আর পল্লীবন্ধু এরশাদ সেই ভূখণ্ডকে নিজ হাতে গড়ে তুলেছেন। তাই এরশাদ শুধু বাংলাদেশের মানুষের নেতা নন, তিনি সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার গণমানুষের নন্দিত নেতা, শ্রেষ্ঠ সংস্কারক। তিনি আগামী ১ জানুয়ারি পার্টির মহাসমাবেশে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ থেকে ৩৫ হাজার নেতাকর্মী অংশ গ্রহণ করবেন বলে ঘোষণা দেন।

প্রতিনিধি সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- দলের ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, যুব সংহতির আহবায়ক আলমগীর শিকদার লোটন, জাপার কেন্দ্রীয় নেতা ইসহাক ভুইয়া, আসির উদ্দীন আহমেদ ডালু, জামাল রানা, হাজী ফারুক, মীর আজগর আলী, আক্তার দেওয়ার, শেখ মাসুক রহমান, সরফুদ্দিন আহমেদ শিপু প্রমুখ।

Category: Product #: Regular price:$ (Sale ends ) Available from: Condition: Good ! Order now!

Author

Leave a comment

Back to Top

Show Buttons
Hide Buttons